Class 9 Geography Model Activity Task Part 2 February 2022 Answer | নবম শ্রেণি ভূগােল মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ২

প্রিয় ছাত্রছাত্রীরা, এখানে আমরা Class 9 Geography Model Activity Task Part 2 February 2022 Answer (নবম শ্রেণি ভূগােল মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ২) এর সমস্ত প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে এসেছি ।

Class 9 Geography Model Activity Task Part 2 February 2022 Answer

Class 9 Geography Model Activity Task Part 2 February 2022 এ মোট ২০ নম্বরের প্রশ্ন দেওয়া রয়েছে যেগুলো তোমাদের সমাধান করে বিদ্যালয়ে জমা দিতে বলা হয়েছে। তোমাদের সুবিধার্থে আমরা এখানে সমস্ত প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে এসেছি। সুতরাং, খুবই মন দিয়ে তোমরা নীচের প্রশ্নোত্তর গুলি লিখবে এবং পড়বে।

Model Activity Task Part 2 February 2022

ভূগােল – Geography

নবম শ্রেণি (Class – IX)

পূর্ণমান – ২০


Class 9 Geography Model Activity Task Part 2 February 2022 Solution

১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখাে : ১x৩ =৩

১.১ নীচের যে ক্ৰমে পৃথিবীর আবর্তন বেগ ক্রমশ কমতে থাকে সেটি হলাে—

(ক) কর্কটক্রান্তি রেখা – সুমেরুবৃত্ত রেখা – নিরক্ষরেখা – সুমেরু 

(খ) নিরক্ষরেখা – কর্কটক্রান্তি রেখা – সুমেরুবৃত্ত রেখা – সুমেরু 

(গ) সুমেরুবৃত্ত রেখা – কর্কটক্রান্তি রেখা – নিরক্ষরেখা – সুমেরু

(ঘ) সুমেরু – সুমেরুবৃত্ত রেখা – কর্কটক্রান্তি রেখা – নিরক্ষরেখা

উত্তর: যে ক্ৰমে পৃথিবীর আবর্তন বেগ ক্রমশ কমতে থাকে সেটি হলাে (খ) নিরক্ষরেখা – কর্কটক্রান্তি রেখা – সুমেরুবৃত্ত রেখা – সুমেরু

১.২ পৃথিবীর আলােকিত অর্ধাংশ ও অন্ধকারাচ্ছন্ন অর্ধাংশের মধ্যবর্তী সীমারেখাকে বলে— 

(ক) মূলমধ্যরেখা

(খ) নিরক্ষরেখা 

(গ) ছায়াবৃত্ত

(ঘ) মকরক্রান্তি রেখা

উত্তর: পৃথিবীর আলােকিত অর্ধাংশ ও অন্ধকারাচ্ছন্ন অর্ধাংশের মধ্যবর্তী সীমারেখাকে বলে (খ) নিরক্ষরেখা।

১.৩ ঠিক জোড়টি নির্বাচন করাে:

(ক) ২১ মার্চ – উত্তর গােলার্ধে দীর্ঘতম দিন, দক্ষিণ গােলার্ধে ক্ষুদ্রতম রাত 

(খ) ২২ ডিসেম্বর – নিরক্ষরেখায় সূর্যরশ্মি লম্বভাবে পড়ে

(গ) পৃথিবীর অনুসুর অবস্থান – উত্তর গােলার্ধে শরৎকাল

(ঘ) ২১ জুন – উত্তর অয়নান্ত দিবস

উত্তর: ঠিক জোড়টি হল (ঘ) ২১ জুন – উত্তর অয়নান্ত দিবস।

২. বাক্যটি সত্য হলে ‘ঠিক’ এবং অসত্য হলে ‘ভুল’ লেখাে : ১x২=২

২.১ কোরিওলিস বলের প্রভাবে পৃথিবীপৃষ্ঠে বায়ুপ্রবাহের দিকবিক্ষেপ ঘটে। 

উত্তর: সত্য।

২.২ ২১ মার্চ থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সূর্যের আপাত দক্ষিণাভিমুখী চলন লক্ষ করা যায়।

উত্তর: ভুল

২.২ ‘ক’ স্তম্ভের সঙ্গে ‘খ’ স্তম্ভ মেলাও : ১x৩=৩

উত্তর:

‘ক’ স্তম্ভ‘খ’ স্তম্ভ
২,২,১ আয়নােস্ফিয়ার২. মেরুপ্রভা 
২.২.২ ফুকো৩.পৃথিবীর আবর্তন গতির পরীক্ষা
২.২.৩ বিষুব১. সমান দিন ও রাত

৩. নীচের প্রশ্নগুলির সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও : ২x২=৪ 

৩.১ সৌরদিন বলতে কী বােঝাে?

উত্তর: পৃথিবী নিজ মেরুদণ্ডের উপর ক্রমাগত পশ্চিম থেকে পূর্বদিকে আবর্তন করে চলেছে। এই আবর্তনের জন্য পৃথিবীর কোনাে নির্দিষ্ট দ্রাঘিমায় পরপর দুটি মধ্যাহ্নের সময়ের ব্যবধান হয় 23 ঘণ্টা 56 মিনিট 4 সেকেন্ড বা 1 দিন, একে সৌরদিন বলে ।

৩.২ অরােরা অস্ট্রালিস কাকে বলে?

উত্তর: 21 শে মার্চ থেকে 23 শে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত একটানা ছয় মাস কুমেরু অঞ্চলে রাত্রি থাকাকালীন আকাশে যে রামধনুর মতাে সুন্দর অস্পষ্ট আলাে বা জ্যোতি দেখা যায়, তাকে অরােরা অস্ট্রালিস বা কুমেরু প্রভা বলে।

৪. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও : ৩x১=৩ 

“ঋতু পরিবর্তনের ক্ষেত্রে পৃথিবীর অক্ষের হেলানাে অবস্থানের প্রভাব সর্বাধিক।”—ভৌগােলিক কারণ ব্যাখ্যা করাে। 

উত্তর: পৃথিবী সূর্য পরিক্রমণের সময় পৃথিবীর অক্ষ কক্ষতলের সঙ্গে 66 1/2° কোণে হেলে থাকে। এই হেলানাে অবস্থানের জন্য পৃথিবীতে উত্তাপের তারতম্য ঘটে। কারণ সূর্যের রশ্মি সর্বত্র পৃথিবীর উপর সমানভাবে পড়েনা। যার ফলে ঋতু পরিবর্তন দেখা যায়। ব্যাখ্যা :- পৃথিবীর যে অংশ সূর্যের দিকে হেলে থাকে, সেই অংশটি সূর্যের কাছাকাছি হওয়ার জন্য সূর্যকিরণ লম্বা হয়ে পড়ে আর অপর অংশটি দূরে হওয়ার কারণে তীর্যকভাবে সূর্যরশ্মি পড়ে। লম্ব ভাবে পড়া রশ্মি পৃথিবীর ওই অংশকে বেশি গরম করে অপরদিকে তীর্যকভাবে পড়া রশ্মি কম করেন। এইভাবে | উত্তাপ এর তারতম্য ঘটে ঋতু পরিবর্তনের সাহায্য করে।

৫. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও : ৫x১=৫ 

পৃথিবীর আবর্তন গতির প্রমাণস্বরূপ যেকোনাে দুটি পরীক্ষা চিত্রসহ ব্যাখ্যা করাে।

উত্তর: পৃথিবীর আবর্তন গতির প্রমাণস্বরূপ দুটি পরীক্ষা নিম্নলিখিত – 

১) নিশ্চল বায়ুতে প্রস্তরখন্ডের পরীক্ষা :- নিশ্চল বায়ুতে কোনাে উঁচু স্থান থেকে একটি পাথর খন্ড নিচে ফেলে দিলে। পাথরখণ্ড টি উপর থেকে নিচে সরাসরি উলম্বভাবে না পড়ে সামান্য পূর্ব দিক ঘেঁসে | মাটিতে পড়ে। পৃথিবীর পশ্চিম থেকে পূর্বে আবর্তন করে বলেই এটি ঘটে। ফ্রান্সের বুলাে এবং জার্মানির হামবুর্গ শহরে প্রায় 250 ফুট উঁচু থেকে | নিক্ষিপ্ত প্রস্তরখণ্ড ৪.4 মিলিমিটার পূর্ব দিকে সরে মাটিতে পতিত হয়।

২) ফুকোর দোলকের পরীক্ষা :- বিখ্যাত ফরাসি বৈজ্ঞানিক ফুকো 1851 খ্রিস্টাব্দে ফ্রান্সের প্যান্থিয়ন গির্জা থেকে 61 মিটার একটি সরু তারের মধ্যে পিন সহ লােহার বল ঝুলিয়ে তার নিচে সামান্য বালি এমন ভাবে ছড়িয়ে দেন যাতে বলটির পিন বালিতে দাগ কাটতে পারে। এরপর বলটিকে উত্তর-দক্ষিণে দুলিয়ে দেন। 

৩) পর্যবেক্ষণ :- চিত্রটি লক্ষ করলে দেখা যাবে পিনটিপ্রথমবার aa’, দ্বিতীয়বারের bb’, তৃতীয়বারে cc’ রেখা অঙ্কন করবে এবং প্রায় 24 ঘন্টা পরে পুনরায় পিনটি aa’ স্থানে ফিরে আসবে। এর থেকে ফুকো লক্ষ করেন। বালিতে আলপিনের দাগগুলি ক্রমশ পূর্ব দিকে সরে যাচ্ছে। 

৪) সিদ্ধান্ত :- পৃথিবীর পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে আবর্তন করছে বলেই এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

You have to wait 20 seconds.
Wait For 10th Post…

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *