Class 7 Geography Model Activity Task Part 2 February 2022 | সপ্তম শ্রেণি পরিবেশ ও ভূগােল মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক পার্ট ২ ফেব্রুয়ারী

Class 7 Geography Model Activity Task Part 2 February 2022

Class 7 Geography Model Activity Task Part 2 February 2022 এ মোট ২০ নম্বরের প্রশ্ন দেওয়া রয়েছে যেগুলো তোমাদের সমাধান করে বিদ্যালয়ে জমা দিতে বলা হয়েছে। তোমাদের সুবিধার্থে আমরা এখানে সমস্ত প্রশ্ন ও উত্তর নিয়ে এসেছি। সুতরাং, খুবই মন দিয়ে তোমরা নীচের প্রশ্নোত্তর গুলি লিখবে এবং পড়বে।

Model Activity Task Part 2, February 2022

পরিবেশ ও ভূগােল (Geography)

সপ্তম শ্রেণি  (Class – VII)

পূর্ণমান : ২০


Class 7 Geography Model Activity Task Part 2 February 2022

১. বিকল্পগুলি থেকে ঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে লেখাে : ১x৩=৩

১.১ নিরক্ষরেখার সাপেক্ষে ভারত অবস্থিত – 

(ক) উত্তর গােলার্ধে

(খ) দক্ষিণ গােলার্ধে 

(গ) পূর্ব গােলার্ধে

(ঘ) পশ্চিম গােলার্ধে

উত্তর: নিরক্ষরেখার সাপেক্ষে ভারত অবস্থিত –  (ক) উত্তর গােলার্ধে

১.২ ভূ-গােলকে একটি অক্ষরেখা একটি দ্রাঘিমারেখাকে যত ডিগ্রি কোণে ছেদ করে তা হলাে –

(ক) ০°

(খ) ৯০° 

(গ) ৬০°

(ঘ) ৩০°

উত্তর: ভূ-গােলকে একটি অক্ষরেখা একটি দ্রাঘিমারেখাকে যত ডিগ্রি কোণে ছেদ করে তা হলাে –  (খ) ৯০° 

১.৩ ভূ-গােলকে অঙ্কিত প্রত্যেকটি দ্রাঘিমারেখা – 

(ক) উপবৃত্ত

(খ) পূর্ণবৃত্ত 

(গ) অর্ধবৃত্ত

(ঘ) সরলরৈখিক

উত্তর: ভূ-গােলকে অঙ্কিত প্রত্যেকটি দ্রাঘিমারেখা – গ) অর্ধবৃত্ত

২.১ শূন্যস্থান পূরণ করাে : ১x২=২

২.১.১. ১° দ্রাঘিমা ঘুরতে পৃথিবীর সময় লাগে_________ঘণ্টা। 

উত্তর: ১° দ্রাঘিমা ঘুরতে পৃথিবীর সময় লাগে 4 মিনিট  

২.১.২ দুটি দ্রাঘিমার মধ্যে দূরত্ব_______উপর সবচেয়ে বেশি।

উত্তর: দুটি দ্রাঘিমার মধ্যে দূরত্ব নিরক্ষরেখা উপর সবচেয়ে বেশি 

২.২ ‘ক’ স্তম্ভের সঙ্গে ‘খ’ স্তম্ভ মেলাও : ১x৩=৩

‘ক’ স্তম্ভ‘খ’ স্তম্ভ
২.২.১.           ২৩° ৩০’ উ:১. মূলমধ্যরেখা
২.২.২.                 ০°২. ভারতের প্রমাণ সময়
২.২.৩.          ৮২° ৩০’ পূ:৩. কর্কটক্রান্তি রেখা

উত্তর:

‘ক’ স্তম্ভ‘খ’ স্তম্ভ
২.২.১.            ২৩° ৩০’ উ:৩. কর্কটক্রান্তি রেখা
২.২.২.                 ০°১. মূলমধ্যরেখা
২.২.৩.          ৮২° ৩০’ পূ:২. ভারতের প্রমাণ সময়

৩. নীচের প্রশ্নগুলির সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও : ২x২=৪

৩.১ অক্ষরেখা কাকে বলে?

উত্তর: নিরক্ষরেখার উভয়দিকে নিরক্ষরেখার সমান্তরালভাবে পৃথিবীর পূর্বদিক থেকে পশ্চিমদিকে ১০ পরপর যে ৯০টি পরস্পর সমান্তরাল যে সমস্ত রেখাবৃত্ত কল্পনা করা হয়েছে তাদের প্রত্যেকটিকে অক্ষরেখা বলা হয়।

৩.২ GPS-এর দুটি উপযােগিতা উল্লেখ করাে। 

উত্তর: GPS বিভিন্ন কাজে ব্যবহার করা হয়। যেমন – 

i) অবস্থান নির্ণয-GPS এর সাহায্যে পৃথিবীর যে কোনাে স্থানের অবস্থান খুব নিখুঁতভাবে জানা যায়।

ii) দিক নির্ণয়-GPS এর সাহায্যে জাহাজ, স্টিমার ও নৌকার নাবিকরা সহজে দিক নির্নয় করতে পারে। 

iii) ট্রেনের গতিবেগ নির্ণয়-যেকোনাে স্থান থেকে ট্রেনের গতিবিধি সম্পর্কে জানার জন্য GPS ব্যবহার করা হয়। Future Point

iv) মানচিত্র তৈরি-বিভিন্ন দেশের সীমানা চিহ্নিতকরণে ও বিভিন্ন প্রকার মানচিত্র তৈরিতে GPS ব্যবহার করা হয়।

৪. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও : ৩x১=৩

অক্ষরেখা ও দ্রাঘিমারেখার মধ্যে তিনটি পার্থক্য লেখাে। 

উত্তর: 

অক্ষরেখাদ্রাঘিমা রেখা
(১) একই অক্ষাংশ বিশিষ্ট রেখাকে অক্ষরেখা বলে ।(১) একই দ্রাঘিমাংশ বিশিষ্ট রেখাকে দ্রাঘিমারেখা বলে ।
(২) অক্ষরেখাগুলাে পৃথিবীর পূর্ব-পশ্চিমে বিস্তৃত।(২) দ্রাঘিমারেখাগুলাে পৃথিবীর উত্তর-দক্ষিণে বিস্তৃত।
(৩) অক্ষরেখাগুলাে নিরক্ষরেখা এবং নিজেদের মধ্যে সর্বদা সমান্তরালভাবে অবস্থিত থাকে।(৩) দ্রাঘিমারেখাগুলাে পরস্পরের মধ্যে মধ্যে সর্বদা সমান্তরালভাবে বিন্যস্ত থাকে না, কারণ প্রতিটি দ্রাঘিমারেখা উত্তর ও দক্ষিণ মেরুতে পরস্পরের সঙ্গে মিলিত হয়েছে।
৪) সমাক্ষরেখাগুলাে পূর্ণবৃত্ত।(৪) দ্রাঘিমারেখাগুলাে অর্ধবৃত্ত।
(৫) উওর বা দক্ষিণ গােলার্ধের প্রত্যেকটি অক্ষরেখার দৈর্ঘ্যে পার্থক্য লক্ষ করা যায়। নিরক্ষরেখা হল দীর্ঘতম অক্ষরেখা, এই রেখা থেকে উত্তরে বা দক্ষিণে মেরুদ্বয়ের দিকে অক্ষরেখাগুলাের দৈর্ঘ্য কিন্তু ক্রমশ কমতে থাকে ।(৫) প্রতিটি দ্রাঘিমারেখার দৈর্ঘ্য সমান।
(৬) একই অক্ষরেখায় অবস্থিত স্থানগুলাে পরস্পরের পূর্ব বা পশ্চিম দিকে বিস্তৃত ।(৬) একই দ্রাঘিমারেখায় অবস্থিত স্থানগুলাে পরস্পরের উত্তরে বা দক্ষিণে অবস্থিত থাকে।

wbshiksha.com – best educational website

৫. নীচের প্রশ্নটির উত্তর দাও : ৫x১=৫

চিত্রসহ কোনাে স্থানের দ্রাঘিমা নির্ণয়ের পদ্ধতিটি লেখাে।

উত্তর: দ্রাঘিমা নির্ণয় : মূলমধ্যরেখা (০° ) থেকে পূর্বদিকে ১৮০° পর্যন্ত বিস্তৃত। দ্রাঘিমাকে পূর্ব দ্রাঘিমা বলে। আর, মূলমধ্যরেখা থেকে পশ্চিম দিকে ১৮০° পর্যন্ত বিস্তৃত দ্রাঘিমাকে পশ্চিম দ্রাঘিমা বলে। পৃথিবী গােলাকার হওয়ায় ১৮০° পূর্ব ও ১৮০° পশ্চিম দ্রাঘিমা রেখা হল একই রেখা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *